NARAYANGANJ

বিআইডব্লিওটিএ ইকো পার্ক

Written by admin

নারায়ণগঞ্জ জেলার খানপুরে বরফকল খেয়াঘাট সংলগ্ন এলাকায় ১.৭৬ একর জমির উপর অবস্থিত পরিবেশবান্ধব বিনোদন কেন্দ্র  বিআইডব্লিওটিএ ইকো পার্ক। পূর্বে এই পার্কের নাম ছিলো চৌরঙ্গী ফ্যান্টাসী পার্ক। পরবর্তীতে ২০১৭ সালে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষ(বিআইডব্লিওটিএ) এটিকে ইকোপার্ক হিসেবে ঘোষণা করে। চৌরঙ্গী ফ্যান্টাসী পার্কে প্রবেশমূল্য ৫০ টাকা। পার্কে ঢুকেই চোখে পড়বে একটি বিশাল গরিলার মূর্তি। এ যেন কিং কং মুভির সেই বিখ্যাত গরিলা আপনাকে স্বাগতম জানানোর জন্য দাঁড়িয়ে আছে। শীতলক্ষ্যা নদীর তীরে অত্যন্ত মনোরম পরিবেশে অবস্থিত এই পার্কে রয়েছে মোট ৯টি রাইড। মেরিগোল্ড, ম্যাজিক বোট, বাম্পার কার, হানি সুইং, ওয়ান্ডার হুইল, রোলার কোস্টার, ফ্রিজবি ও ফ্লাইং রকেট ইত্যাদি রাইড এর পাশাপাশি নদীতে ওয়াটার বোট এর ব্যবস্থাও করা হয়েছে। প্রতিটি রাইডের জন্য আপনার মাত্র ৬০ টাকা থেকে ৯০ টাকা করে খরচ হবে। ওয়ান্ডার হুইল বা নাগরদোলায় চড়লে উপর থেকে শীতলক্ষ্যা নদী ও পার্শ্ববর্তী এলাকার চোখ জুড়ানো দৃশ্য দেখা যায়। সম্প্রতি বাচ্চাদের জন্য পার্কের ভিতরে গেমস ও কিডস জোনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। সুতরাং আপনার পরিবার কিংবা বন্ধুদের নিয়ে একদিনেই ঘুরে আসতে পারেন নারায়ণগঞ্জের এই চিত্তবিনোদন কেন্দ্রে।

কিভাবে যাবেন?

ঢাকা থেকে নারায়ণগঞ্জ যাওয়ার জন্য প্রথমে আপনাকে যেতে হবে গুলিস্তানে। গুলিস্তান থেকে নারায়ণগঞ্জের চাষাড়ায় যাওয়ার জন্য বিআরটিসি এসি বাস, শীতল এসি বাস, উৎসব ইত্যাদি বাস সার্ভিস রয়েছে। ভাড়া জনপ্রতি মাত্র ৫০ টাকা থেকে ৫৫ টাকা। এছাড়াও গুলিস্তান এর যাত্রাবাড়ি ফ্লাইওভারে উঠার আগেই অসংখ্য লোকাল বাস চাষাড়ায় যায়। সেক্ষেত্রে জনপ্রতি ভাড়া আরো কম লাগবে। চাষাড়ায় পৌঁছে অটো কিংবা রিকশায় করে খানপুর বরফকুল যেতে হবে। এখানেই সেই কাঙ্ক্ষিত বিআইডব্লিওটিএ ইকো পার্ক।

কি দেখবেন? 

ইকোপার্কে রাইডে চড়া ছাড়াও নদীতে ওয়াটার বোট চালিয়ে আনন্দ উপভোগ করতে পারেন। কিংবা শীতলক্ষ্যা নদীর তীরবর্তী ওয়াকওয়ে দিয়ে হাঁটতে হাঁটতে নদীর সৌন্দর্য ও নদীকে কেন্দ্র করে গড়ে ওঠা জীবনব্যবস্থার বৈচিত্র্য উপলব্ধি করতে পারেন। তবে ইকোপার্ক ভ্রমণের পাশাপাশি আপনি চাইলে নারায়ণঞ্জের সোনাকান্দা কেল্লা, জিন্দা পার্ক, রাসেল পার্ক, ফতুল্লার পঞ্চবটির অ্যাডভেঞ্চারল্যান্ড পার্ক, ফতুল্লার লামাপাড়ায় নম পার্ক কিংবা বাংলার তাজমহল সোনারগাঁও ঘুরে আসতে পারেন।

কোথায় খাবেন? 

ইকোপার্কের ভিতরে দর্শনার্থীদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা আছে। পার্কের পাশেই শীতলক্ষ্যা নদীর বুকে জাহাজের আদলে বানানো হয়েছে একটি নান্দনিক ভাসমান রেস্তোরা। এখানে সুলভ মূল্যে সুস্বাদু খাবার পরিবেশন করা হয়। এছাড়াও আপনি চাইলে চাষাড়ায় গিয়ে ভালো কোনো রেন্টুরেন্টে খাওয়াদাওয়া করতে পারেন। সেজন্য আপনি ঝালমুখ রেন্টুরেন্ট লিমিটেড, পিজ্জা হাট, চিট চ্যাট ইত্যাদি রেস্টুরেন্ট বেঁছে নিতে পারেন।

Leave a Comment

Our new website now under construction, It will coming soon. Do you like to get notify when the new version will be on live?

Subscribe for notifications.

You have successfully subscribed to the newsletter

There was an error while trying to send your request. Please try again.

Bangladesh Tourism Guide will use the information you provide on this form to be in touch with you and to provide updates and marketing.