ঢাকা

পাকশী হার্ডিঞ্জ ব্রীজ

Written by admin

পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার পাকশী ও কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলার মাঝ পদ্মা নদীর উপর নির্মিত ব্রিজটির নাম পাকশী হার্ডিঞ্জ ব্রীজ। তৎকালীন ভাইসরয় লর্ড হার্ডিঞ্জ ৪ মার্চ ১৯১৫ সালে এটি উদ্বোধন করেন। তার নামনুসারে ব্রিজটির নামকরণ করা হয় হার্ডিঞ্জ ব্রিজ। ব্রিটিশ সরকার ভারত উপমহাদেশের রেল যোগাযোগের ব্যাপকতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ১২৬ বছর আগে ১৮৮৯ সালে পদ্মা নদীর ওপর রেল সেতু নির্মাণের পরিকল্পনা করে। বিশেষ করে ভারতের দার্জিলিং ও ভারতের পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য আসামে যাতায়াতের সুবিধার্থে বর্তমান বাংলাদেশের কুষ্টিয়া ও পাবনা জেলার সীমারেখা পদ্মা নদীর ওপর ব্রীজ নির্মাণের প্রক্রিয়া শুরু করে।

ব্রীটিশ সরকারের নির্মিত Pakshi Harding Bridge এর খ্যাতি বিশাল পরিচয় বহন করে। বর্তমান জগতে হার্ডিঞ্জ ব্রীজের চেয়েও লম্বা অনেক আছে। কিন্তু কিছু কিছু কারণে এ ব্রীজটি অপ্রতিদ্বন্দীভাবে বিখ্যাত। প্রথম কারণ হচ্ছে এ ব্রীজের ভিত গভীরতম পানির সর্বনিম্ন সীমা থেকে ১৬০ ফুট বা ১৯২ এমএসএল মাটির নিচে। এর মধ্যে ১৫ নম্বর স্তম্ভের কুয়া স্থাপিত হয়েছে পানি নিম্নসীমা থেকে ১শ ৫৯ দশমিক ৬০ ফুট নিচে এবং সর্বোচ্চ সীমা থেকে ১শ ৯০ দশমিক ৬০ ফুট অর্থ্যাৎ সমুদ্রের গড় উচ্চতা থেকে ১শ ৪০ ফুট নীচে। সে সময় পৃথীবিতে এ ধরনের ভিত্তির মধ্যেই এটাই ছিল গভিরতম। ব্রীজটি অপূর্ব সুন্দর ও আর্কষণীয় হওয়াতে ব্রিটিশ ইন চীফ ইঞ্জিনিয়ার রবার্ট উইলিয়াম গেইলস’কে সাফল্যের পুরস্কারস্বরূপ স্যার উপাধিতে ভূষিত করা হয়।

হার্ডিঞ্জ ব্রিজ এর পাশে নিয়মিত দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম লালন শাহ সেতু আর পদ্মার দু’পাড়ের সবুজে ঘেরা মনোরম সৌন্দর্য্য বিনোদন প্রেমীদের কাছে নতুন মাত্রা আনে। হার্ডিঞ্জ ব্রিজের আশপাশের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য ঘিরে ইতিমধ্যে গড়ে উঠেছে রিসোর্ট, পিকনিক স্পট।

যাওয়ার উপায়

বাংলাদেশের যে কোন জায়গা হতে রেল অথবা সড়ক পথে ঈশ্বরদী রেলওয়ে স্টেশন অথবা বাস টার্মিনালে নেমে রিক্মা/টেম্পুযোগে যাওয়া যায়। তবে ব্রীজটি পাকশী রেলওয়ে স্টেশন সংলগ্ন।

কোথায় থাকবেন

  • হোটেল প্রবাসী ইন্টার ন্যাশনাল, রুপকথা রোড, পাবনা ৬৬০০, বাংলাদেশ। ফোন: +৮৮ ০১৭৪৯১৪৮৬৮৫
  • হোটেল পার্ক (শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কক্ষ আছে), আব্দুল হামিদ রোড। ফোন: ০৭৩১-৬৪০৯৬
  • হোটেল শিলটন, আব্দুল হামিদ রোড, পাবনা। ফোন: ০৭৩১-৬২০০৬,০১৭১২-৪৩৩২৪৯
  • ছায়ানীড় হোটেল, রুপকথা রোড, পাবনা। ফোন: ০৭৩১-৬৬১০০, ৬৫৩৯০
  • প্রাইম গেস্ট হাউস (গাড়ি পারকিং এর ব্যাবস্থা আছে, শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কক্ষ আছে), আব্দুল হামিদ রোড, পাবনা। ফোন: ০৭৩১ -৬৫৭০১, ০৭৩১-৬৬৯০১
  • মিড নাইট মুন চাইনিজ রেস্টুরেন্ট (আবাসিক হোটেল, গাড়ি পারকিং এর ব্যাবস্থা আছে, শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কক্ষ আছে), আব্দুল হামিদ রোড, পাবনা। ফোন: ০৭৩১ -৬৫৭৮৭
  • স্বাগতম হোটেল এন্ড চাইনিজ রেস্টুরেন্ট (শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কক্ষ আছে), রুপকথা রোড, পাবনা। ফোন: ০৭৩১ -৬৪০২৯,০৭৩১-৬৫৮৬১

Leave a Comment

Our new website now under construction, It will coming soon. Do you like to get notify when the new version will be on live?

Subscribe for notifications.

You have successfully subscribed to the newsletter

There was an error while trying to send your request. Please try again.

Bangladesh Tourism Guide will use the information you provide on this form to be in touch with you and to provide updates and marketing.